গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৪


গণধর্ষণ

ময়মনসিংহের ভালুকায় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ করে ভালুকা মডেল থানায় একটি গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

বুধবার (১ জানুয়ারি) দুপুরের দিকে গ্রেফতারকৃত চারজন আসামিকে ময়মনসিংহ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ভালুকা উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের নিশিন্দা গ্রামের একই এলাকার ফজলুল হক (৩৯), লুৎফর রহমান (৩২), শাহী (৩০) ও ভরাডোবা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহসভাপতি মাহমুদুল হক পলাশ (২৫)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ভালুকা পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের মুচারভিটা এলাকায় এক সন্তানের জননীর সঙ্গে পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে মুঠোফোনে কথা বলত উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের নিশিন্দা গ্রামের ছাত্রলীগ নেতা ফজলুল হক।

এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ফজলুল হক মুঠোফোনে ভিকটিমকে তার নিজ বাড়িতে বেড়ানোর জন্য দাওয়াত দেয়। সন্ধ্যায় ভিকটিম ফজলুল হকের বাড়িতে গিয়ে দেখে তিনি ছাড়া বাড়ির কোনো লোকজন নেই। এ সময় বাড়ি খালি দেখে ভিকটিম চলে আসতে চাইলে ফজলুল হক ভিকটিমকে জোরপূর্বক ঘরের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ঘরে আটকে রেখে একই এলাকার মাহমুদুল হক পলাশ, লুৎফর রহমান ও শাহীকে খবর দেয়। পরে তারা এসে ভিকটিমকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষিতাকে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে রাত সাড়ে ৯টার সময় ছেড়ে দেয়। পরে ধর্ষিতা রাতেই ভালুকা মডেল থানায় ঘটনাটি জানালে পুলিশ অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করে।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, ধর্ষিতাকে পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এসএম/আওয়াজবিডি

ads