ফুচকাবিক্রেতা ডাক পেল বিশ্বকাপ ক্রিকেট দলে

ক্রিকেট দলে!

এলাকায় ফুচকা ও ভেলপুরি বিক্রি করে পেট চালাতে এক কিশোর। ক্রিকেটে বেশ ঝোঁক ছিল তার। ক্রিকেটকে হৃদয়ে লালন করত। ফুচকা বিক্রয়ের ফাঁকে ক্রিকেটের সব খোঁজখবর রাখত সে। শুধু খোঁজই রাখত না; নিয়মিত অনুশীলনও করতে দেখা যেত তাকে। থাকার ভালো ঘর ছিল না তার। মাঝেমধ্যে দিনে কাস্টমার কম হলে ফুচকা বিক্রি করে তেমন পয়সা জোগাড় হতো না। রাতে না খেয়ে থাকতে হতো।

তাতে কি! বিকাল বেলায় মাঠে প্র্যাকটিসে যেত সেই তরুণ।

আর ক্রিকেটের প্রতি অগাধ ভালোবাসা থেকেই আজ সে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ করে নেয়া এক ক্রিকেটার। তার নাম যশস্বি জসওয়াল। আগামী বছরে ১৭ জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় বসতে যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট।

আর সেই বিশ্বকাপ খেলতে ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ডাক পেয়েছেন ১৭ বছর বয়সী যশস্বি।

ইতিমধ্যে নিজের পারফর্মেন্সের কথা জানান দিয়েছে দরিদ্র এই কিশোর। চলতি বছর বিজয় হাজারে ট্রফিতে ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে ১৫৪ বলে ২০৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে বিস্ময় বালকে পরিণত হয় মুম্বইয়ের বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান।

১২টি ছক্কা ও ১৭টি বাউন্ডারির মারে এক ঝকঝকে ইনিংস খেলে সে।

এর পরই ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে যশস্বিকে নিয়ে খবর ছড়িয়ে পড়ে। মুম্বাইয়ের এই কিশোরকে এই বাঁ-হাতি বিরাট কোহলি বলে ডাকা শুরু করে ভারতীয়রা।

ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মুম্বাইয়ের আজাদ ময়দানে ফুচকা বিক্রি করে দিন যাপন করে যশস্বি জসওয়াল। তার জন্ম দেশটির উত্তরপ্রদেশের সুরিয়ায়। তবে ১১ বছর বয়সে বাবার হাত ধরে মুম্বাইয়ে চলে আসে যশস্বি। তখন থেকে ক্রিকেটে হাতেখড়ি তার। ক্রিকেট খেলার ফাঁকে ফুচকা ও ভেলপুরি বিক্রি করে জসওয়াল।

এখনও পর্যন্ত ৯টি লিস্ট-এ ম্যাচ খেলেছে যশস্বি। গত মৌসুমে রঞ্জি ট্রফিতে ছত্তিশগড়ের বিরুদ্ধে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার। ভারতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পর যশস্বির বাবা ভূপেন্দর কুমার জসওয়াল বলেন, ‘ছোট থেকেই স্বপ্ন দেখত একদিন ভারতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবে। সেই স্বপ্নই এবার পূরণ হতে চলেছে।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.com/author/awaazbdonlinenews

অনলাইন ডেস্ক

mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ