/ins>

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজাকের বাড়িতে পুলিশের তল্লাশি

মালয়েশিয়ার সদ্য সাবেক হওয়া প্রধানমন্ত্রী নাজিব তুন রাজাকের স্ত্রী রোশমা মানসুরসহ দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারির পর এবার বাসভবনে তল্লাশি চালিয়েছে দেশটির পুলিশ।

বুধবার (১৭ মে) রাতে কুয়ালালামপুরের জালান দুতায় অবস্থিত রাজাকের বাসভবনে এ তল্লাশি চালানো হয়। এ সময় তার বাসা থেকে কিছু জব্দ করা হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, বুধবার রাতে রাজাকের বাসা ঘিরে রাখে পুলিশ। পরে রাত সোয়া ১০টায় মসজিদ থেকে রাজাক বাসায় ফেরার পর বাসার ভেতরে পুলিশ প্রবেশ করে।

/ins>

সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সেখান থেকে তিনটি পুলিশের গাড়ি বের হয়ে যেতে দেখা যায়। তবে কাউকে গ্রেপ্তার করতে দেখা যায়নি। এমনকি এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকেও কিছু জানানো হয়নি।

/ins>

ভোর ৪টার দিকে রাজাকের আইনজীবী হরপাল গ্রেওয়াল সংবাদমাধ্যমকে বলেন, রাতে সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। এ সময় তার পরিবারের সদস্যরাও তাদের সহযোগিতা করেছেন।

এ সময় কারও বিরুদ্ধে পরোয়ানার বিষয়টি উল্লেখ করা ছিল না দাবি করলেও হারপাল মনে করেন, মানি লন্ডারিং আইনের অধীনেই রাজাকের বাড়িতে এ অভিযান চালানো হতে হতে পারে।

/ins>

২০০৯ সালে ওয়ানএমডিবি (ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বারহাদ) মালয়েশিয়ায় অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য তহবিল গঠন করা হয়। এতে ৩০০ কোটি ডলারের বেশি অর্থ ছিল।

যার মাধ্যমে রাজধানী কুয়ালালামপুরকে বিশ্ব অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করার পাশাপাশি কৌশলগত বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি গতিশীল করার পরিকল্পনা নেয় দেশটির তৎকালীন সরকার।

/ins>

কিন্তু অভিযোগ ওঠে, ওই তহবিলের অর্থ আত্মসাতের মাধ্যমে মালয়েশীয়দের প্রতারিত করা হয়েছে। ২০১৬ সালে এ সংক্রান্ত তথ্য প্রমাণ থাকার কথা জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র কমপক্ষে ১০০ কোটি ডলারের সম্পদ জব্দ করার উদ্যোগ নেয়। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেলকোর্টে এ সংক্রান্ত একটি মামলাও হয়।
মার্কিন বিচার বিভাগের দায়ের করা ওই মামলার কাগজপত্রে রাজাকের নাম উল্লেখ না করলেও ‘মালয়েশিয়া অফিসিয়াল ওয়ান’ বলা হয়। এর মধ্যে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মালয়েশিয়াতে রাজাকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়ে যায়।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ওয়ানএমডিবি তহবিল থেকে ৭০ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি অর্থ আত্মসাত করেছেন। যদিও শুরু থেকেই সব অভিযোগ আস্বীকার করে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী মাহাথিরের রাজনৈতিক শিষ্য রাজাক।

ওয়ানএমডিবি কেলেঙ্কারি প্রকাশের পর ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়ার পরামর্শ দেন গুরু মাহাথির। কিন্তু ক্ষমতা ছাড়তে রাজি হননি রাজাক।

এরই প্রেক্ষিতে নিজের সাবেক দল বারিসান ন্যাশনালের (বিএন) বিপক্ষে অবস্থান নেন টানা ২২ বছর মালয়েশিয়া শাসন করা ৯২ বছর বয়সী মাহাথির। সম্প্রতি হয়ে যাওয়া দেশটির ১৪তম নির্বাচনে জয়ও পান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর ড. মাহাথির এ বিষয়ে তদন্ত শুরুর নির্দেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় রাজাক ও তার স্ত্রীর দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

Comments With Facebook