/ins>

বাংলাদেশি কমিউনিটিতে আনন্দের বন্যা

ব্রিটেনের ৯ কাউন্সিলর জগন্নাথপুরের

প্রবাসী বাংলাদেশীরা যুক্তরাজ্যে স্থানীয় রাজনীতি ও সমাজসেবায় নিজেদের সম্পৃক্ত করে স্থানীয় নাগরিকদের মন জয় করেছেন। তারা গত ৪ মের স্থানীয় কাউন্সিল নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখেছেন।

ব্রিটেনের স্থানীয় নির্বাচনে বৃহত্তর সিলেটের ২৫ জন প্রার্থী কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হয়েছেন। যার মধ্যে শুধুমাত্র জগন্নাথপুর উপজেলার ৯ জন প্রবাসী কাউন্সিলর পদে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন।

তাদের এ বিজয়ে প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটির মধ্যে আনন্দের জোয়ার বইছে। এই আনন্দের ঢেউ বাংলাদেশে আত্মীয়স্বজনদের মধ্যেও লেগেছে।

/ins>

বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের দেড়শ কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিপুলসংখ্যক ব্রিটিশ বাংলাদেশী প্রধান তিন রাজনৈতিক দল কনজারভেটিভ পার্টি, লেবার পার্টি, লিবারেল ডেমোক্রেটের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

/ins>

এ নির্বাচনে সুনামগঞ্জ জেলার প্রবাসী-অধ্যুষিত জগন্নাথপুর উপজেলার প্রবাসীদের জয়জয়কার হয়েছে। নির্বাচনে এ উপজেলার ৯ জন কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

জানা যায়, উপজেলার পৌরশহরের হবিবপুর এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবী আব্দুল মুকিত চুনু (এম.বি.ই) তৃতীয়বারের মতো ওয়েবারর্স এলাকা থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

/ins>

একই গ্রামের যুক্তরাজ্যপ্রবাসী সাবেক কাউন্সিলর হেলাল রহমানের স্ত্রী জেনেট রহমান,ব্রোমলী বাই ব নর্থ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত হন।

অপরদিকে উপজেলা পাটলী ইউনিয়নের পাটলী গ্রামের লুৎফুর রহমান ম্যানচেষ্টার সিটি কাউন্সিল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি এ নিয়ে ৪ বার নির্বাচিত হন। একই গ্রামের আবুল কায়ের চৌধুরী দ্বিতীয়বারের মতো হাম্পশায়ার এলাকা থেকে নির্বাচিত হন। একই ইউনিয়নের প্রভাকরপুর গ্রামের আহবাব হোসেন বেথনালগ্রিন এলাকা থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন।

/ins>

এদিকে সৈয়দপুর গ্রামের প্রবাসী সমশের কোরেশীর স্ত্রী লিমা কোরেশী স্পিটফিল্ড এলাকা থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। একই গ্রামের সৈয়দ তরব আলীর মেয়ে সৈয়দা সামছিয়া আলী ডারলিংটন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। একই গ্রামের সাজু হোসেনও টাওয়ার হেমলেট্স এলাকা থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত জনপ্রতিনিধিদের বিজয়ে দেশে-বিদেশে অবস্থানরত আত্মীয়স্বজনসহ এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

বিভিন্ন মহল থেকে বিজয়ী কাউন্সিলরদের অভিনন্দন আর শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের কর্মময় জীবনের সাফল্য কামনা করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা চলছে।

Comments With Facebook