/ins>

বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র-সিইওসহ ৭ জনকে শোকজ

বরিশাল ব্যুরো

নগরীতে নিজ মালিকানাধীন দোকান ঘর থেকে অবৈধভাবে উচ্ছেদের হুমকী দেয়ার অভিযোগে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়রসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

১৬ মে বুধবার বরিশাল সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিচারক আগামী ২১ দিনের মধ্যে এ কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন। এর আগে গত ১০ মে দোকান মালিক নেছার উদ্দিন খান মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় সিটি মেয়র, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব, প্রধান প্রকৌশলী, উপ সহকারী প্রকৌশলী (১৯নং ওয়ার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত), কাউন্সিলর ও বগুরা রোড শিতলা খোলা এলাকার নারায়ন চন্দ্র শীলকে অভিযুক্ত করা হয়।

/ins>

মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী আজাদ রহমান জানান, নগরীর নতুন বাজার এলাকার বাসিন্দা নেছার উদ্দিন খান বগুড়া আলেকান্দা মৌজায় ৪ শতাংশ জমির মালিক।

/ins>

ওই জমিতে দুটি দোকান ঘর তুলে একটিতে খান স্টোর নামে নিজে এবং অপরটিতে কৃষ্ণচূড়া জুয়েলার্স নামে ভাড়া দেন নেছার উদ্দিন।

এছাড়া নেছার উদ্দিন ওই সম্পত্তি বন্ধক রেখে বাজার রোডের পূবালী ব্যাংক থেকে ১২ লাখ টাকা গ্রহন করেন। কিন্ত গত ৯ মে নারায়ন শীল ওই সম্পত্তি দখল করতে সিটি কর্পোরেশনের সহায়তায় নেছার উদ্দিনকে বেদখলের হুমকী দেয়।

/ins>

এসময় নেছার উদ্দিনের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে নারায়ন শীলসহ অন্যান্যরা কয়েকদিনের মধ্যে তাকে দোকান ঘর থেকে তাড়িয়ে দিয়ে তা দখলের হুমকী দিয়ে এলাকা ত্যাগ করে।

এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে মামলাটি দায়ের করলে গতকাল আদেশ দানের ধার্য্য তারিখে আদালত ওই নির্দেশ দেন।

/ins>

Comments With Facebook